প্রশ্ন : আমরা দুজন সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত ছিলাম। মসজিদের নিচতলায় এসির ঠাণ্ডায় খুব সমস্যা হচ্ছিল। তাই নিচে ফাঁকা থাকা সত্ত্বেও দোতলায় গিয়ে জামাতে শরিক হই। আমাদের এই নামাজ কি হয়েছে?

—জহিরুল হক, মুন্সীগঞ্জ।

উত্তর : প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে ওজরের কারণে আপনাদের জন্য দোতলায় দাঁড়ানো মাকরুহ হয়নি। তবে স্বাভাবিক অবস্থায় মুসল্লিদের কর্তব্য হলো নিচতলা পূর্ণ করার পরই ওপরতলায় দাঁড়ানো। নিচতলায় ফাঁকা রেখে ওপরতলায় দাঁড়ানো প্রায় সামনের কাতার পূর্ণ না করে পেছনের কাতারে দাঁড়ানোর মতোই। হাদিসে এসেছে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘তোমরা সামনের কাতার পূর্ণ করো। এরপর তার পরবর্তী কাতার। অপূর্ণ থাকলে তা যেন পেছনের কাতারে থাকে।’

(সূত্র : সুনানে আবু দাউদ, হাদিস : ৬৭১; ফাতাওয়া বাজ্যাজিয়া : ১/৫৭; রদ্দুল মুহতার : ১/৫৭০)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *